কষ্টের ভালবাসার গল্প-একটি জীবন নষ্ট হওয়ার গল্প

কষ্টের ভালবাসার গল্প-একটি জীবন নষ্ট হওয়ার গল্প ছোট বেলা খেকে একজন ভালো ছাএ ছিলাম কষ্টের ভালবাসার গল্প। class one থেকে 5 পযনত এক রোল ছিলো,,,,,, তারপর আসতে আসতে বড় হতে লাগলাম,,,, তারপর তখন মনেহতো এতোপড়ালেখা করে কী হবে এমনিতেই তো রোল ১ হয় । কিনতু ৭ম শ্রেনি থেকে ৮মম শ্রেনিতে উঠে রোল ৫ হয়ে যায়,,,,,,,তারপর ৮ম শ্রেনিতে উঠার কয়দিন পর G.S.C পরীখা শুরুু হলো সেখানে সবগুলোই পরীখা ভালো দিলাম,,,,কষ্টের ভালবাসার গল্প-একটি জীবন নষ্ট হওয়ার গল্প

কষ্টের-ভালবাসার-গল্প

পরীখা শেষ হওয়ার কয়মাস পর Result দিলো পরীখায় Goldan + পায় মানে 5.00 পয়েনট,,,,, তারপর ৯ম এ উঠে সবার কাছ থেকে ডিজিশন নিয়ে Science নিলাম কয়েক মাস সবকিছু ঠিক ঠাক চলছিলো ,,,,, তারপর ৯ম শ্রেনিতে ১ম সাময়িক পরীখা হলো,,, সেখানে পরীখা তেমন একটা ভালো হলো না মনটাও অনেক খারাপ হয়ে গেলো পরীখার Result এর পর কয়েকদিন সকুল বনধ দিলো কিনতু বাড়িতে থাকতে মন চাইতো না সবসময় মনে হতো বনধুদের সাথে একটু ঘুরাঘুরি করি,,,,,,

সেই সময় বনধু দের পছনদ মতো একটা মেয়ের সাথে প্রেম করলাম,,,,,, মেয়েটি দেখতে অনেক সুনদর ছিলো কিনতু মেয়েটির মনটা অনেক খারাপ ছিলো কারন মেয়েটির সাথে কয়েক দিন প্রেম করে করে বুঝে ফেললাম তার পরেও মন মানতো না ,,,,, মেয়েটির সাথে প্রেম করার জন্য বাড়ি থেকে একাক দিন এক অজুহাত দেখিয়ে টাকা নিতাম সেই টাকা নিয়ে মেয়েটিকে বিভিনন ধরনের givet কিনে দিতাম এতে মেয়েটা অনেক খুশি হতো,,,,,, এমনি কি যে সকুল কোচিং বনধ থাকতো সেই দিন বাড়িতে মিথ্যা কথা বলে বের হয়ে মেয়েটির সাথে দেখা করতে যেতাম এতে মেয়েটারও ভালো লাগতো আর আমরও অনেক ভালোলাগতো,,,,

এভাবে একের পর এক মিথ্যা কথা বলে বাড়ি থেকে বের হতাম,,,,,, আসতে আসতে এমন একটা প্রজায় গিয়ে দাড়ালো মিথ্যা কথা বলা অভ্যাসে পরিনত হয়ে গিছিলো।। আগে আমি কখনো মিথ্যা কথা বলতাম না কিনতু সেই আগের মতো আমি আর নেই এভাবে কয়েক মাস চলতে লাগলো,,,,,,, ★★**তারপর কিছুদিন পর আমার ৯ম শ্রেনিতে ফাইনাল পরীখার রুটিন দিলো,,,,,

মনে মনে ভাবলাম পরীখা শুরুহওয়ার এখনো ১০ দিন বাকি এই দশ দিনে ভালো করে পড়তে মোটামুটি পরীখার খাতায় কিছু লিখতে পারবো এই চিনতা ভাবনা করে পড়তে বসলাম সনধ্যার সময়,,,,,, কিনতু বইটি মেলিয়ে দুই এক পৃষটা না পড়তেই আর পড়তে ভালো লাগতো না তেখনি ওই বইটি বনধ করে শুয়ে পড়ে সারারাত মেয়েটির কথা চিনতা করতাম,,,,,,,

এভাবে ভাবতে ভাবতে পরীখা শুরু হলো প্রায় ১মাস মতো পরীখা হলো কিনতু পরীখা তেমন একটা ভালো হলো না,,,,,, প্রতিদিন বাড়িতে এসে আববু আমমু জিগগাস করতো পরীখা কেমন হয়েছে আমি তখন কোনো কথা না ভেবেই তাদের কে বলে দিতাম হ্যা ভালো হয়েছে,,,,,, পরীখা শেষ হওয়ার কয়েক মাস পর Result দিলো কোনো মতে টেনেটুনে পাস করলাম।।

বাড়ি থেকে আববু আমমু Result শুনে অনেক বকাবকি করলো,,,,,,, বাড়ি থেকে এক প্রজায়ে রাগের মাথায় বলো আর পড়ালেখা করতে হবে না ফাও পড়ালেখা করে কি হবে আমি কোনো কথা বললাম না,,,,,, কয়েক দিন আমার মনটাও খারাপ হলো কোনো কিছু ভালো লাগছিলো না তারপরেও সেই মেয়েটির সাথে আমি কথা চালিয়ে যায় বাড়ির মানুষের কারোর কথা শুনলাম না ,,,,,,,,,

তারপর থেকেই মেয়েটির সাথে প্রেমের গভীরতা আরো বেশি হয়ে যায়,,,,,,তারপর একদিন হটাৎ একদিন সকুলে গিয়ে দেখি মেয়েটি একটা ছেলের সাথে কথা বলছে এতে আমার মনটার মধ্যে অনেক খারাপ লেগেছে কিনতু সেই সময় আমি আর কিছু জিগগাস করি নি এবং তাদের কাছে গিয়ে জিগগাস ও করিনি,,,,,,

ওই সকুলে মনটা অনেক খারাপ করে বসে থাকলাম আর অনেক কথায় ভাবতে লাগতাম,,,,, তারপর দিন সকুলে গিয়ে মেয়েটির সাথে দেখা ক’রলাম এসব বিয়সে জিগগাস করলাম কিনতু মেয়েটি বললো আমার বদ ভাইয়া হয়,,,, তখন আমি আর কিছু মনে করলাম না হাসিমুখে মেয়েটির কথা বিশশাস করে নিলাম,,,,,,,বনধুরা মেয়েটিকে আমি আমার নিজের থেকেও বেশি ভালোবাসতাম,,,,,,

তারপর কয়েক দিন পর শুনতে পারলাম মেয়েটি নাকি আমাকে ভালোবাসে না আর আমার class. এর বনধু -বানধবি রা বলছে আমাকে ডেকে কিনতু আমি আমার বনধু -বানধবি দের কথা বিশশাস করি নি তখন।,, ,, এভাবে তারপরেও কয়েক দিন চলতে লাগলে,,,,,,,, তারপর আবার হটাত দেখি আমার একদিন টিফিন পিরিওয়ডে মেয়েটি ওই সেই ছেলেটার সাথে কথা বলছে আমি তাতেও কিছু মনে করি নি কারন মেয়েটি বলেছিলো ওটা ওর ভাইয়া,,,,,,,

এভাবে পরপর তিন চার দিন সকুলের টিফিন পিরিওয়ডে আবার মেয়েটি ছেলেটির সাথে কথা বলছে এই দেখে আমার মাথায় রাগ উঠে গেলো আমি আর রাগ টা থামাতে পারলাম না,,,, সাথে সাথে মেয়েটির কাছে গেলাম এবং গিয়ে তাকে একটু বকাঝকা দিয়ে সকুল থেকে চলে আসলাম।,,,,,,, ,, তারকিছু দিন পর লোকে মুখে শুনতে পারলাম আমি আর ভালোমতো পড়ালেখা করি না পরীখায় ভালো Result করি না তাই মেয়েটি নাকি আর আমাকে ভালোবাসবে না,,,,,,,

এই কথাটা শুনে আমি তারপরের দিনই মেয়েটির সাথে দেখাকরলাম এবং মেয়েটি আমাকে বললো তুমি এখন আর আগের মতো পড়ালেখাই ভালো ছাএ নেই আর আগেও মতো অতো পড়ালেখাও করো না তাই আমি তোমার সাথে আর রিলেশন রাখতে পারবো না এই কথা শুনে আমি আর থির হয়ে ওখানে দাড়াতে পারছিলাম দুই চোখ দিয়ে শুধু পানি বেয়ে বেয়ে পড়ছিলো,,,,, এবং তখনি মেয়েটি আমাদের রিলেশন ওখানে দাড়িয়ে brackup করে দিয়ে চলে গেলো,,,,,, সেইদিন আমি আর বাড়িতে গিয়ে একটুও ঘুমাতে পারি নি,,,,, রাতে মেয়েটির ফোনে ফোন দিলাম কয়েক বার তা ফোন রিসিভ করলো না কয়েক বার ম্যাসেজ করলাম তাও কোনো রিপলাই পেলাম না এবং,,,,,,,,

তার কিছুদিন পর শুনতে পারলাম মেয়েটি আমাকে মিথ্যা কথা বলে যাকে ভাইয়া ভাইয়া বলে প্রতিদিন টিফিন পিরিওয়ডে গিয়ে কথা বলতো সেই ছেলিটির সাথে মেয়েটি প্রেম করছে,,,,, এরপর এই কষেট আমি কয়েক দিন সকুল গেলাম না,,, কষট সজ্য না করতে পেরে আমি এবার সিগারেট খাওয়া শুরু করলাম ,,,,,,,, এরপর দেখতে দেখতে আমাদের S.S.C পরীখা চলে আসলো প্রায় একমাসেরও বেশি পরীখা হলো পরীখা শেষে আমি বাড়িতে বেশি থাকতাম না প্রায় সময় বাজার ঘাটে বনধুদের সাথে বিভিনন বাজে ভাবে ঘোরা ফেরা করতাম বিভিনন ধরনের খারাপ জিনিস খাইতাম নিশাকরতাম এতে আমার বাড়ির মানুষও অনেক বকাঝকা দিতো তারাও অনেক টেনশনে থাকতো,,,,,,, তার কয়েক দিনপর আমার S.S.C পরীখার Result দিলো তাতে আমি ফেল করলাম,,,,,, সেইদিন অনেক বকাঝকা বাড়ি থেকে

তারপর অনেক মারধর করলো আমি একজন ভালো ছাএ হয়ে কী ভাবে ফেলকরলাম এটা আমিও মানতে পারছি না সেই দিন থেকে তিন চার দিন না খেয়ে থাকলাম কিছুই ভালো লাগছিলো মনেমনে শুধু একটা কথায় ভাবছিলাম শুধুমাএ একটা মেয়ের জন্য আজ আমার এইকূল ও গেলো ওকূল গেলো,,,,,,আমি তো আমার বাড়ির মানুষের সামনে গিয়ে দাড়াতে পারছি তাদেরকে মুখই দেখাতে পারছি না এভাবে কয়েক মাস চলে গেলো নিজেকে এভাবে আর মেনে নিতে পারছি না,,,,,,

এই যে সেই উপর থেকে নিচে নামতে লাগলাম আর উপরে উঠাই হলো না আর আমার পড়ালেখা হলো না সাধারন মানুষের মতো একটা কাজে যাওয়া শুরু করলাম,,,,,, তারপর থেকে আমি সকলের কাছে একজন নষ্ট ছেলে হয়ে গেলাম শুধু মাএ একটি মেয়ের কারনে।


ব্যি:দ্র:এভাবেই লাখ লাখ ছেলের সুনদর ভবিষ্যাত নষট করতে একটা ছলনাময়ী মেয়েই যথেষ্ট,,, অতএব আমরও সকলেই যার যার জায়গা থেকে নিজেই ভালোমাপের একজন জীবন সঙগী খুজে বের করবো,,,,

বনধুরা গলপটি সকলেই পড়বেন যদি কোনো ভুল এ্রুটি হয়ে থাকে তাহলে খমা দৃষ্টি তে দেখবেন
END

ভালবাসার গল্প 

কষ্টের ভালোবাসার গল্প

উক্তি ও বানী

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *